ছবি: রাজু আহমেদ

বিশেষ প্রতিবেদক: নাটোরের সিংড়া উপজেলার কতুয়াবাড়ী-বলিয়াবাড়ি রাস্তার মহেশচন্দ্রপুর কলকলি নামক স্থানে দুপুরে বাঁধ ভেঙ্গে গেছে।

রোববার (২৬ জুলাই) দুপুরে আত্রাই নদীর পানির প্রবল স্রোতে বাঁধটি ভেঙ্গে যায়। বাঁধ ভেঙ্গে কলম-চানপুর বিলে পানি প্রবেশ করছে। এতে করে কলম ইউনিয়ন প্লাবিত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিশেষ করে কলম, কুমারপাড়া, বলিয়াবাড়ি, জগতপুর, নজরপুর, কলকলিপাড়াসহ ১০ টি গ্রাম প্লাবিত হবে বলে আশংকা করা হচ্ছে বলে জানান কলম ইউপি চেয়ারম্যান মঈনুল হক চুনু। তিনি বন্যার্ত এলাকা পরিদর্শন এবং খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

এদিকে রোববার আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার ৯৩ সে: মি: উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ইতোমধ্যে উপজেলার সুকাশ ও হাতিয়ান্দহ ব্যতিত ১০টি ইউনিয়ন এবং সিংড়া পৌর এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ২৬ টি আশ্রয় কেন্দ্রে দু হাজার বন্যার্ত আশ্রয় নিয়েছে।

সিংড়া পৌর এলাকার ১২ টি ওয়ার্ডে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। সিংড়া বাজার সহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। প্রয়োজনীয় খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে উপজেলা প্রশাসন।

অপরদিকে আইসিটি জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি ও ব্যক্তিগতভাবে ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছেন। এদিকে পৌর এলাকার বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ সহায়তা এবং বন্যার্তদের সহায়তা করে যাচ্ছেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস। এছাড়া জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন সংস্থা ও এগিয়ে আসছে।

কৃতজ্ঞতা: রাজু আহমেদ