নিজস্ব প্রতিবেদক: সিংড়ায় জামিলা ফয়েজ পলিটেকনিক কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদের বিরুদ্ধে সামাজিক বনায়নের ৩৪৫টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে সোমবার (২৫ মার্চ) বিকেলে উপজেলা বন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বাদী হয়ে বন আইনে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বালুয়া বাসুয়া-বারুহাস সড়কে ২০জন উপকারভোগী আকাশমনি, ইউকেলাপটার্সসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগায়। শনিবার গভীর রাতে আবুল কালাম আজাদের হুকুমে পেট্রোল দিয়ে গাছগুলো পুড়িয়ে দেয়া হয়। পরের দিন স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে বন বিভাগে খবর দেয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ও তাজপুর ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আবু হানিফ বলেন, স্থানীয় ব্যক্তিদের নিয়ে সামাজিক বনায়ন হিসেবে গাছ লাগানো হয়। কিন্তু রাতের আধারে গাছ গুলো পুড়ানো হয়েছে।

অভিযুক্ত অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ বলেন, সেখানে আমার জমি আছে, জমির সামনে আগাছা ও জঙ্গল পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে তবে গাছ পুড়ানোর ব্যাপারে আমি কিছু জানি না।

উপজেলা বন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, এ বিষয়ে বন আইনে মামলা করা হয়েছে। অভিযুক্ত আবুল কালাম আজাদ ক্ষোভের বশে এমন কাজ করেছে বলে আমরা তদন্তে প্রমাণ পেয়েছি। এ ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।