নিজস্ব প্রতিবেদক: সিংড়ায় নূরজাহান বেগম (২১) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নিহত নূরজাহান বেগম ওই উপজেলার কৈগ্রামের কৃষক শাহীন হোসেনের স্ত্রী।

রোববার উপজেলার রামানন্দ খাজুরিয়া ইউনিয়ন থেকে লাশ উদ্ধার করে সিংড়া থানার এসআই আব্দুল মালেক। সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নুরজাহানকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করছেন তার স্বজনরা। স্হানীয়রা জানান, পারিবারিক কলহের জেরে গত শনিবার সকালে নুরজাহানকে মারপিট করে তার স্বামী শাহীন। এতে বিকাল সাড়ে ৪টার সময় নিজ শয়ন কক্ষে রশি (দরি) দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেন নুরজাহান।

সিংড়া থানার এসআই আব্দুল মালেক জানান, প্রায় দুই বছর পূর্বে সিংড়া উপজেলার শুকাস ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া গ্রামের মৃত নুর হোসেনের মেয়ে নূরজাহান বেগমের সঙ্গে একই উপজেলার কৈগ্রামের সাদেক আলীর ছেলে শাহীন হোসেনের বিয়ে হয়। হঠাৎ ওই গৃহবধূর নিজ শয়ন ঘরে গলায় রশি দিয়ে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটা আত্মহত্যা। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে এর আসল তথ্য জানা যাবে।

সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।