বিশেষ প্রতিবেদক: নাটোরের সিংড়ায় যুবলীগের হামলায় শিল্পী বেগম (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছে। তিনি চৌগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম ইদ্রীস আলী মন্ডলের স্ত্রী। ইদ্রিস আলী কিছুদিন আগে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

রোববার (৬ আগস্ট) সকালে উপজেলার চৌগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এক যুবলীগ নেতাসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় লাভলি (৩৫) নামে অপর একজন আহত হয়েছে। নিহত ও আহত নারী সম্পর্কে দুই বোন।

নিহতের বোন শিউলী ও প্রত্যক্ষদর্শী জানান, রোববার সকালে ৬ বিঘা জমিতে আমন ধান রোপন করতে আসে চৌগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবিসহ তাঁর ভাইয়েরা। দীর্ঘদিন থেকে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। শিউলীসহ তিন বোন নিষেধ করলে চৌগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রবির নেতৃত্বে আইয়ুব, তৌফিকুল, বিলাশ, বজুসহ ৮/১০ জন ধারালো অস্ত্র নিয়ে আঘাত করেন।

শিল্পীর ভাই রতন আলী অভিযোগ করেন, পৈতৃক সম্পত্তি ভাগ-বাটোয়ারা না করে রবিউল ইসলাম জোর করে ভোগদখল করছিলেন। দুদিন আগে বিষয়টি সিংড়া থানায় জানালে একজন পুলিশ কর্মকর্তা গতকাল শনিবার এলাকায় এসে বিষয়টি মীমাংসা করার প্রস্তাব দিয়ে যান। অথচ আজ সকালে তারা জোর করে বিরোধপূর্ণ জমিতে ধান রোপণ করতে গেলে আমার বোনেরা তাদের বাধা দেন। এ সময় প্রতিপক্ষ তাদের ছুরিকাঘাত করে।

এসময় শিল্পীর পেটে ডেগারের আঘাতে মাটিতে লুটে পড়েন তিনি। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করেন। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিল্পীকে মৃত ঘোষণা করেন। অপর আহত লাভলীর অবস্থাও আশংকামুক্ত নয় বলে জানা গেছে।

চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদুল ইসলাম ভোলা বলেন, জমি-জমা নিয়ে বিরোধে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। নিহত শিল্পী বেগম আওয়ামী লীগের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন।

সিংড়া থানার ওসি নুর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহত শিল্পীর লাশ সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

কৃতজ্ঞতা: আবু জাফর সিদ্দিকী ও আরিফুল ইসলাম