নিজস্ব প্রতিবেদক: সিংড়ায় উপজেলার চক লাড়ুয়া গ্রামে সিদ্দিক প্রামানিক (৪৫) নামের ১ ব্যক্তি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । নিহত আবু বক্কর সিদ্দিক একই এলাকার আয়েজ উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা হওয়ায় জীবন দিতে হলো স্বামী সিদ্দিক প্রামানিককে। সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) নেয়ামুল ইসলাম সত্যটা স্বীকার করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৩ জানুয়ারি) সকালে চকলাড়ুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে সিংড়া থানা পুলিশ।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) নেয়ামুল ইসলাম ও এলাকাবাসী জানায়, চকলাড়ুয়া গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক প্রতিদিনের মত গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যার পর বাড়ি থেকে বের হন বাজারে যাওয়ার জন্য। কিন্তু রাতে আর ফিরে আসেননি আবু বক্কর সিদ্দিক। এদিকে অনেক রাত পর্যন্ত ফিরে না আসায় পরিবারের সদস্যরা গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় তার খোঁজ করেও তার কোনো সন্ধান পায়নি। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার বাড়ীর অদুরে চক লাড়ুয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠের পাশে একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। প্রাথমিক সুরতহাল প্রতিবেদনে নিহতের গলায় ও মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

সিংড়া থানার ওসি (তদন্ত) নেয়ামুল ইসলাম আরো জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে, আবু বক্কর সিদ্দিককে গলায় কিছু পেঁচিয়ে ও মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডটি পারিবারিক কলহের জের ধরে ঘটে থাকতে পারে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, নিহতের স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ময়না তদন্ত শেষে এর সঠিক কারণ জাানা যাবে।