নিউজ ডেস্ক: নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্ক‍ার প্রার্থী জুনাইদ আহমেদ পলক তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।শনিবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি নিয়ে সাংবাদিকদের কাছে ২৭ দফার ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি। আওয়ামী লীগের মূল ইশতেহারের সাথে সামঞ্জস্য রেখে এলাকার আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে সম্পৃক্ত করে এই ইশতেহার ঘোষণা করা হয়েছে। সু-শাসন প্রতিষ্ঠা, কৃষি ভিত্তিক শিল্প কারখানা প্রতিষ্ঠা, বেকারত্বের অবসান, প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও কর্ম সংস্থান, বিদ্যুতায়নকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

পলক ইশতেহারে উল্লেখ করেন, আসন্ন নির্বাচনে বিজয়ী হলে সিংড়ায় একটি হাইটেক পার্ক ও শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করা হবে। যেখানে পর্যায়ক্রমে প্রায় ২০ হাজার দক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে।

চলনবিল উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নসহ সকল কৃষককে বৈদ্যুতিক সেচ সংযোগের আওতায় আনা, কৃষি ভিত্তিক শিল্প স্থাপন ও উপজেলা হাসপাতালকে ১০০ শয্যায় উন্নীত করা হবে। একই সঙ্গে সিংড়ার প্রতিটি গ্রামকে শহরে পরিণত করতে পাঁচটি মৌলিক চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হবে।

পলক বলেন, চক্ষুক্যাম্প স্থাপন করে নিয়মিত বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা দুস্থ মানুষের সেবা নিশ্চিত করা হবে। টেলিমেডিসন সেবা সম্প্রসারণের মাধ্যমে উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তির নিশ্চয়তা দেওয়া হবে। একই সঙ্গে সরকারি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপনসহ সরকারিভাবে পরিচালিত একটি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ স্থাপন করা হবে।

শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধি প্রকল্পে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের পাশাপাশি গণিত ক্যাম্প, বিজ্ঞান ও ইংরেজি ক্যাম্পের ব্যবস্থা করার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিংড়ায় ঘুষ, দুর্নীতি ও হয়রানি মুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করে জনবান্ধব জনপ্রশাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সুশাসন নিশ্চিত করা হবে।

নাটোর-বগুড়া মহাসড়কে প্রশস্তকরণ প্রকল্প বাস্তবায়ন ও নিরাপত্তা জোরদার করাসহ সিংড়া উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। আধুনিক স্টেডিয়াম, শিশু পার্ক স্থাপন ও আধুনিক অডিটোরিয়াম নির্মাণ করা হবে।

কেন্দ্রীয় মসজিদ ও ইসলামিক সেন্টার স্থাপন করাসহ প্রতিটি গ্রামকে পাকা সড়ক দ্বারা সিংড়া সদরের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নারী-শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথক টয়লেট স্থাপন, ইভটিজিং, যৌতুকসহ নারী নির্যাতন ও বৈষম্যমূলক আচরণের বিরুদ্ধে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় প্রতিরোধের মাধ্যমে নারীবান্ধব সিংড়া গড়ে তোলা হবে। এছাড়া মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত নিরাপদ সিংড়া প্রতিষ্ঠা করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী পলক ২৭ দফা ইশতেহার ঘোষণার পাশাপাশি গত ১০ বছরের উন্নয়ন কার্যক্রমের চিত্র তুলে ধরে বলেন, গত ১০ বছরে সিংড়া উপজেলায় ৮৫ হাজার নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ হয়েছে। ২০০ কিলোমিটার পাকা রাস্তা ও সিংড়ায় বাসস্ট্যান্ডে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। ৫৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব, ৬৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম চালু ও হুলহুলিয়া গ্রামে ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন, তিনতলা বিশিষ্ট ৫০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ ও তিনটি আধুনিক অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, চলনবিলের পানি নিষ্কাশনের জন্য ১০৪ কিলোমিটার খাল খনন ও শতাধিক ব্রিজ এবং কার্লভাট নির্মাণ করা হয়েছে। ১০০টির অধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নতুন ভবন নির্মাণ, চারতলা বিশিষ্ট উপজেলা প্রশাসনিক ভবন ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হয়েছে।

ইশতেহার ঘোষণা অনুষ্ঠানে সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক, সিংড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জান্নাতুল ফেরদৌস, বিকল্পধারার প্রার্থী মঞ্জুরুল আলম হাসু, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজানসহ ১২ টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ইউনিয়নের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।