বিশেষ প্রতিবেদক: নাটোরের সিংড়ায় বন্যা দুর্ভোগের মধ্যে রাস্তা কেটে দিয়ে জলাবদ্ধতা তৈরির উঠেছে। রোববার (২ আগস্ট) রাতের আঁধারে উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নে পানিপুকুর হতে বাইগুনি পাকা রাস্তার মাঝে কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। রাতের আঁধারে কোনো এক সময় একটি সংঘবদ্ধ চক্র এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী।

জানা গেছে, এই রাস্তাটি বাঁধ হিসেবে কয়েকটি গ্রামকে বন্যা থেকে রক্ষা করছিল। কিন্তু একদিকের পানি ফুলে ওঠায় নিজেরা বাঁচতে রাস্তা কেটে দিয়ে বিলের পানি বের করে দেওয়া হচ্ছে। ফলে অন্য পারের মানুষের ফসল ও বাড়ি ঘর হুমকির সন্মুখীন হয়ে পড়েছে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন, লক্ষীকোলা গ্রামের কিছু অসাধু ব্যক্তি রাতের আধারে এ কাজ করেছে। এর আগে তারা দিনে রাস্তা কেটে বিলের পানি নামিয়ে দেওয়ার পায়তারা করে।কিন্তু অন্যান্য গ্রামবাসীর বাঁধার মুখে তার সফল হয়নি। তাই রাতের আধারে রাস্তা কেটে দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, রাস্তার প্রবেশ মুখে একটি কালভার্ট দিয়ে পানি প্রবাহ চলমান রয়েছে। তারপরেও এই রাস্তা কেটে দেওয়ার বিষয়টি মেনে নেওয়া যায় না। তারা অভিযোগ করেন, রাস্তা কেটে দেওয়ায় বিলে পানি ঢুকে পড়েছে। ফসলের ক্ষতি হয়েছে। বাড়ি ঘর হয়ে পড়েছে হুমকির সন্মুখীন। এই অবস্থার মধ্যে স্বার্থান্বেষী একটি মহল সৌতিজাল দিয়ে মাছ ধরার পাঁয়তারা করছেন।

অপরদিকে জনদুর্ভোগে পড়েছে সাধারণ মানুষ। রাস্তা দিয়ে মানুষের ও যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে শুকাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান আব্দুল মজিদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, করোনায় আক্রান্ত থাকায় তিনি ঘটনাস্থলে যেতে পারছেন না। তবে ইউপি মেম্বরকে রাস্তা সংস্কারে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

কৃতজ্ঞতা: রাজু আহমেদ