নিজস্ব প্রতিবেদক: আসন্ন সিংড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আদেশ আলীকে দোয়াত কলম মার্কা প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের একাংশ।

শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় সিংড়া বাসস্ট্যান্ডে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী (সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদানকারী) আদেশ আলীর পক্ষে শান্তি সমাবেশে এই আহবান জানান তারা। সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নবীর উদ্দিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আদেশ আলী সরদার, সিংড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও ইটালী ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক ও তাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক ও চৌগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা, আওয়ামী লীগ নেতা ও ডাহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এমএম আবুল কালাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শেরকোল ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুল হাবিব রুবেল, ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক বকুল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ‘আমরা ক্ষমতার লোভী না। তাই আমরা প্রার্থী না হয়ে তৃতীয় পক্ষকে এখানে প্রার্থী করেছি। আর এখানে আদেশ আলী কোন প্রার্থী না। তৃণমূল নেতাকর্মীরাই প্রার্থী। দুর্নীতিমুক্ত ও সুশাসন নিশ্চিত করতে আদেশ আলীকে নির্বাচিত করুন।

বক্তারা বলেন, সম্প্রতি উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফিকের সমর্থক শেরকোল ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি কামরুল সরকারের উপর (মোবাইল ফোন বিষয়ে) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলা করে শফিকের নাতি নাজমুল হক পলক। কিন্তু এই ব্যক্তিগত ঘটনাকে রাজনৈতিক রুপ দিয়ে গত ২০ ফেব্রুয়ারী বিকেলে আচরনবিধি লংঘন করে উপজেলায় দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রড, লোহার পাইপ, ঝাঁড়–বৈঠা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে শফিক সমর্থকরা। যা সিংড়ার ইতিহাসকে কলংকিত করেছে। মিছিলে আওয়ামী লীগ ও স্থানীয় নেতাদের অপমান করে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়া হয়। মিছিলে শ্লোগানের মাধ্যমে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও সিংড়ার জনসাধারণকে অপমানিত করা হয়েছে।

বক্তারা আরো বলেন, শান্তিপ্রিয় সিংড়াকে অশান্ত করতে চায় মীর জাফর শফিকুল ইসলাম শফিক। কিন্তু তিনি জানেন না সিংড়াবাসীকে ভয় ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে নির্বাচনে জয়ী হওয়া যাবে না। শফিকুল ইসলাম শফিক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হলেও তিনি আওয়ামী লীগ ও সাধারণ জনগণের সমর্থন হারিয়েছেন। খন্দকার মোস্তাক রুপী শফিকের হাতে সিংড়া মানুষরা নিরাপদ নয়। তাই জনগণ আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে।

এর আগে সিংড়া উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণের ব্যানারে উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী একটি শান্তি মিছিল করেন। মিছিলটি পৌর শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।