নিজস্ব প্রতিবেদক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘আমরা দেশের স্টার্টআপদের বিনা ভাড়ায় স্পেস বরাদ্দ দিচ্ছি। বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদানসহ বিভিন্ন সহায়তা করা হচ্ছে। এখন বিশ্ব বাজারে আমাদের স্টার্টআপদের জন্য একটা প্লাটফর্ম রেডি করা আমাদের জন্য খুবই জরুরি।’

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত আইসিটি টাওয়ারে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এই আগ্রহ প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক প্লাটফর্মে স্টার্টআপদের প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পথে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ, মার্কেটপ্লেসে কাজ করার ক্ষেত্রে বাধা এবং বিদেশি বিনিয়োগ ও ফান্ডিং পাওয়ার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনা সভায় যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গ্লোবাল এন্টারপ্রেনার নেটওয়ার্কের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর সুসান আমাল, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

পলক আরো বলেন, ‘আমাদের স্টার্টআপদের অনেক দুর্দান্ত আইডিয়া আছে, আমরা সেই আইডিয়াগুলো কাজ লাগাতে চাই। অন্যান্য দেশের স্টার্টআপদের সাথে যুগোপযোগী কাজ করতে পারলে আমাদের দেশের স্টার্টআপ নলেজ শেয়ার করে আইটি বিজনেসের বৈশ্বিক গতিধারা সম্পর্কে জানতে পারবে।’

আলোচনায় সুসান আমাল বলেন, ‘মেন্টরিং এবং সঠিক গাইডেন্সের অভাবে ৮০ ভাগ স্টার্টআপ দাঁড়াতে পারে না। সঠিক দিক নির্দেশনা পেলে এই স্টার্টআপদের মাধ্যমেই অনেক বড় বড় কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। সফলতা হাতে এসে ধরা দেবে, এজন্য সিলিকন ভ্যালিতে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।’

উল্লেখ্য গ্লোবাল এন্টারপ্রেনার নেটওয়ার্ক বিশ্বের প্রায় ১৭০টি দেশের সাথে কাজ করে।