নিউজ ডেস্ক: ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) বিকালে এই কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। নতুন এ কমিটিতে বিগত কমিটির অনেক নেতাই গুরুত্বপূর্ণ পদ পেয়েছেন। আবার সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের অনেকেই গুরুত্বপূর্ণ পদে পেয়েছেন। ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিগত কমিটির কয়েকজন নেতাকেও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে আনা হয়েছে।

কমিটির কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পদে ১০ জন, সহ-সভাপতি পদে ১৯ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে তিনজন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ৯ জন, বিষয়ভিত্তিক সম্পাদক পদে ৩৫ জন, উপ-সম্পাদক পদে ২৮ জন এবং সদস্য পদে ৫০ জনকে নিয়ে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

সূত্রগুলো জানায়, স্বেচ্ছাসেবক লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে প্রথম সহসভাপতি রাখা হয়েছে স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিগত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্যসচিব গাজী মেজবাউল হক সাচ্চুকে। দ্বিতীয় সহসভাপতি হয়েছেন আ. রাজ্জাক আর তিন নম্বরে নাম রয়েছে সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয়ের। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে আছেন ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিগত কমিটির সভাপতি মোবাশ্বের হোসেন, বিগত কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম আজিম ও খায়রুল হাসান জুয়েল। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক দুই সভাপতি মেহেদী হাসান মোল্লা ও আবিদ আল হাসানকে রাখা হয়েছে। দপ্তর সম্পাদক হয়েছেন বিগত কমিটির উপদপ্তর সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ, প্রচার সম্পাদক হয়েছেন রফিকুল ইসলাম বিটু।

এর আগে গত বছর ১৬ নভেম্বর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে নির্মল রঞ্জন গুহকে সভাপতি এবং আফজালুর রহমান বাবুকে সাধারণ সম্পাদক করে স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে আওয়ামী লীগের সভাপতির কাছে প্রস্তাবিত কমিটি জমা দিলে তা অনুমোদন পায়।