নিউজ ডেস্ক: হঠাৎ অসুস্থ হয়ে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু ও বিএনপি চেয়ারপাসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে ফেরার পথে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন বিএনপির এই নেতা। প্রথমে কাকরাইলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর সেখান থেকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু বলেন, প্রেস ক্লাবের প্রোগ্রাম শেষে বাসায় ফেরার পথে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন রিজভী। গাড়িতে ওঠার পর তার বুকে প্রচণ্ড ব্যথা ওঠে। এখন তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এছাড়া বিএনপি চেয়ারপাসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন রিজভীর চিকিৎসার সকল ধরনের খোঁজ খবর রাখছেন। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে রিজভীর অসুস্থতার বিষয়টি অবগত করা হয়েছে বলেও জানান শায়রুল।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব নির্বাচিত হন রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। এর পাশাপাশি তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দপ্তর সম্পাদক ও মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এর আগে ১৯৮৪ সালে এরশাদবিরোধী আন্দোলনে রুহুল কবির রিজভী পেটে গুলিবিদ্ধ হলে সাব-অ্যাকিউট ইনটেস্টাইনাল অবসট্রাকশন সমস্যায় ভোগেন। তার পেটে অস্ত্রোপচার থেকে এ সমস্যা হয়। এ রোগের জন্য আগে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে অপারেশন করিয়েছিলেন। এরপর মাঝেমধ্যে তিনি সমস্যায় ভোগেন। এর আগে গত বছর বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ থাকা অবস্থায় এ রোগে ভুগছিলেন রিজভী। ওই সময় তার পেটে প্রচণ্ড ব্যথা ও বমি হয়।